৩ কার্তিক ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৭ , ৫:৫৯ পূর্বাহ্ণ
bangla fonts
facebook twitter google plus rss
Somoyer Narayanganj
organic sweets
Laisfita

মানববন্ধন ও সমাবেশ করে তনু হত্যার বিচার দাবী মহানগর যুবদলের


২৭ মার্চ ২০১৬ রবিবার, ০৪:৩১  পিএম

নিউজ নারায়ণগঞ্জ


মানববন্ধন ও সমাবেশ করে তনু হত্যার বিচার দাবী মহানগর যুবদলের

নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যার বিচার দাবিতে নারায়ণগঞ্জে কালো পতাকা হাতে মানববন্ধন করেছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল। রোববার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে যুবদলের নেতাকর্মীরা সোহাগী জাহান তনু হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচার দাবিতে শ্লোগান দেয়। একই সঙ্গে এ মানববন্ধন থেকে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পূর্বেই বিএনপি প্রার্থীদের  হয়রানির অভিযোগ তুলে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ দাবি করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খান।
 
প্রধান অতিথি আনোয়ার হোসেন খান বলেন, তনু হত্যাকারীদের এখনও গ্রেফতার করা হয়নি। হত্যাকারীরা শক্তিশালী এবং এ আওয়ামীলীগ সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে। সরকারের ছত্রছায়ায় থাকা সন্ত্রাসী খুনিরা বারবার পার পেয়ে যাচ্ছে। সারাদেশে যখন তনু হত্যার ঘটনাটি আলোড়ন সৃষ্টি করেছে কিন্তু এখনও খুনিদের গ্রেফতার করা হয়নি।
 
সভাপতির বক্তব্যে মাকসুুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ বলেন,  আওয়ামীলীগের ছত্রছায়ায় থাকা সন্ত্রাসীদের কখনই বিচার হয়না। বিচারবিহীন থাকছে আওয়ামীলীগের খুনি ধর্ষণকারী সন্ত্রাসীরা। যে কারণে তনুর মত সারাদেশে আমাদের বোনদের ইজ্জত হরণ চলছে। পুলিশ এখণ জনগনের জান মালের নিরাপত্তা না দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে নির্যাতনে ব্যস্ত। বিএনপি নেতাকর্মীদের দমিয়ে সরকারের মসনদ বহাল রাখতে নিয়োজিত হয়েছে পুলিশ। যে কারণে এখনও মানুষের জানমালের কোন নিরাপত্তা নেই।
 
আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ইস্যূ টেনে খোরশেদ বলেন, আওয়ামীলীগ নির্বাচনের আগেই তালিকা করেছে কে  কে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবে। তাই শুধু শুধু রাষ্ট্রের অর্থ নষ্ট করে নির্বাচনের কোন দরকার নেই। আজকে ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচনের ভোট দিতে ডিসি অফিসে আমি গেলে সেখানে আওয়ামীলীগ যুবলীগের সন্ত্রাসীরা ভেবেছিল আমি কোন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র জমা দিতে গিয়েছি। তাই আমাকে ঘিরে ধরা হয়েছিল। বিএনপির প্রার্থীরা বাড়িতে থাকতে পারছে না। তাদের হয়রানি শুরু হয়ে গেছে তাহলে এমন নির্বাচনের দরকার কি? এ নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ দাবি করি।

তিনি বলেন, তনু হত্যার পর কোন সুশীল তো বিবৃতি দিয়ে প্রতিবাদও করলা না। কিন্তু এ শহরে বিএনপিই এ ঘটনার মানববন্ধন করে বিচার দাবি করলো।
 
এসময় আরো বক্তব্য রাখেন নগর বিএনপির যুগ্ম  সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক চৌধুরী দিপু, বিল্লাল হোসেন, মহানগর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সানোয়ার হোসেন, রানা মুজিব, আক্তার হোসেন খোকন শাহ, সাগর প্রধান, জুয়েল রানা, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রশিদুর রহমান রশু, যুবদল নেতা রিটন দে, মাহাবুব হাসান জুলহাস, ইসলে উদ্দীন ইছা, আল আমিন খান, আহাম্মদ আলী, সোহেল খান বাবু, আলী নওশেদ তুষার, মিঠু, শহিদুল ইসলাম, জানে আলম দুলাল, মুহিদ আহম্মেদ তুহিন, জেলা মৎস্যজীবী দলের আহ্বায়ক গিয়াসউদ্দীন প্রধান, শ্রমিকদল নেতা ফারুক হোসেন, তোফাজ্জল হোসেন খোকা, সেলিম মিয়া, জামাল হোসেন, ছাত্রদল নেতা শাহজালাল মিয়া, রায়হান, গোগনগর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রার্থী নজরুল ইসলাম সর্দার, যুবদল নেতা মতলব হোসেন সহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


নিউজ নারায়াণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:

Shirt Piece
রাজনীতি -এর সর্বশেষ