নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় আইনজীবীর স্বামী ‘টাউট’কে মারধর


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ০৮:৫৬ পিএম, ১৭ মে ২০২০, রবিবার
নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় আইনজীবীর স্বামী ‘টাউট’কে মারধর

ভার্চুয়াল কোর্ট চলাকালিন সময়ে অন্য আইনজীবীরা মামলা অনুমতি ব্যতীত অসাধু উপায়ে পরিচালনার অভিযোগে একজনকে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। ১৭ মে রোববার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ আদালত পাড়ায় এই ঘটনা ঘটেছে।

মারধরের শিকার হওয়া ব্যক্তি হলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য অ্যাডভোকেট সোহাগী আক্তারের স্বামী। আদালতপাড়ায় একজন চিহ্নিত ‘টাউট’ হিসেবে তার পরিচিতি রয়েছে। একই সাথে তিনি আবার নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হান্নান সরকারের ভাই।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, এদিন দুপুরে বার সমিতির নেতৃবৃন্দ আদালতপাড়ায় ‘টাউট’ তাড়াতে অভিযানে বের হন। সেময় তারা জেলা জজ কোর্টের পূর্ব দিকে কম্পিউটার দোকানগুলোতে গিয়ে দেখেন অ্যাডভোকেট সোহাগী আক্তারের পক্ষে তার স্বামী কাজ করছেন।

এসময় তাকে তল্লাশী চালালে অন্য আরেকজন আইনজীবীর মামলার কপি পাওয়া যায়। যা আইনজীবী সমিতির বিধান অনুযায়ী অমার্জনীয় কাজ। আর এতে অন্য আইনজীবীরা ক্ষেপে গিয়ে বার সমিতির নেতাদের উপস্থিতিতেই তাকে বেদম মারধর করা হয়। পরে অন্যরা এগিয়ে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

আদালতপাড়া সূত্রে জানা গেছে, সাধারণ আইনজীবীদের স্বার্থে ভার্চুয়াল কোর্টে কার্যক্রম থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এই সুযোগে যে সকল আইনজীবী মামলা পরিচালনা করছেন না তাদের মক্কেলদের সাথে যোগাযোগ করে অসৎভাবে মামলা পরিচালনার জন্য নিয়ে যাচ্ছেন। আর তাদেরকেই রুখে দেয়ার লক্ষ্যে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

এদিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে সকল আইনজীবীদের একটি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। যেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, বাংলাদেশের বার কাউন্সিল অ্যাক্ট ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির গঠনতন্ত্রের ৩০ (ঝ) এর বিধান মতে কোনো আইনজীবী অন্য কোনো আইনজীবীর মামলা লিখিত অনুমতি (এনওসি) ব্যাতীত পরিচালনা করতে পারবেন না। যদি কেউ করে তার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর