বিকাশে ১৬ হাজার পরিবারকে সহযোগীতা প্রদান সেলিম ওসমানের


স্টাফ করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৪:০৩ পিএম, ১১ মে ২০২০, সোমবার
বিকাশে ১৬ হাজার পরিবারকে সহযোগীতা প্রদান সেলিম ওসমানের

করোনা সংকট মোকাবেলায় রমজান মাসে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের আওতাধীন এলাকার প্রায় ২০ হাজার পরিবারের মাঝে সহযোগীতার ঘোষণার পর তৃতীয় ধাপে আরো ৫ হাজার পরিবারের মাঝে সেই সহযোগীতা পৌছে দেওয়া হয়েছে যার পরিমাণ ৪৫ লাখ টাকা।

এ নিয়ে ঘোষিত সহযোগীতার ১ কোটি ৮০ লাখ টাকার মাঝে তিন ধাপে মোট ১৬ হাজার পরিবারের মাঝে ১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা সহযোগীতা প্রদান করা হয়েছে। আর এমপি সেলিম ওসমানের ঘোষণা অনুযায়ী ২ কোটি ২৮ লাখ টাকার প্যাকেজের মধ্য ডাক্তারদের জন্য প্রদান করা ২০ লাখ টাকা সহ এখন পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৬৬ লাখ টাকা প্রদান করা হয়েছে।

সোমবার ১১ মে তৃতীয় ধাপে ওই ৫ হাজার পরিবারের মাঝে আর্থিক সহযোগীতা প্রত্যেকের বিকাশ একাউন্টে পৌছে দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে সিটি কর্পোরেশনের প্রতিটি কাউন্সিলরের মাধ্যমে ৫০০ জন করে ২জনের মাধ্যমে ১হাজার জন এবং ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় ১হাজার জন করে মোট ৪টি ইউনিয়ন এলাকায় ৪হাজার জনকে প্রেরন করা হয়েছে।

সহযোগীতা প্রেরণ করা এলাকাগুলো হচ্ছে, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ বিভা হাসান এর মাধ্যমে সংরক্ষিত ওয়ার্ড ১৬,১৭,১৮, ও কাউন্সিলর মাকছুদুল আলম খোরশেদের মাধ্যমে ১৩নং ওয়ার্ড এলাকা। ইউনিয়ন পরিষদগুলোর মধ্যে বন্দর, কলাগাছিয়া, ধামগড় ও মুছাপুর ইউনিয়ন।

এ ব্যাপারে সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান বলেন, জনপ্রতিনিধিরা আমার কাছে তালিকা প্রেরণ করতে বিলম্ব করেছেন আবার অনেকের প্রেরিত তালিকায় অনেক ভুল ভ্রান্তি রয়েছে। যার ফলে সাধারণ মানুষের কাছে সহযোগীতা পৌছে দিতে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। এজন্য আমি সাধারণ মানুষের কাছে আন্তরিকভাবে দু:খ প্রকাশ করছি।

উল্লেখ্য এমপি সেলিম ওসমানের ঘোষণা অনুযায়ী প্রথম ধাপে ৫ মে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১১, ১২, ১৪, ১৯, ২০, ২৩, ২৪, ২৫নং ওয়ার্ড ও সরক্ষিতি ১১,১২ ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে এবং ১৮নং ওয়ার্ডে সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্না মাধ্যমে ৫ হাজার পরিবারের কাছে সেই সহযোগীতা পৌছে দেওয়া হয়েছে। যার পরিমান ৪৫ লাখ টাকা। প্রতিটি ওয়ার্ড এলাকায় ৫০০জন করে এই সহযোগীতা প্রদান করা হয়েছে। ওই ৫ হাজার মানুষের বিকাশ একাউন্ডে ২০ কেজি চালের সমপরিমান ৯০০ টাকা করে প্রত্যেকের বিকাশ একাউন্টে প্রেরন করা হয়েছে।

দ্বিতীয় ধাপে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৫, ১৬, ২২, ২৬নং ওয়ার্ড ও নারী কাউন্সিলরদের মাধ্যমে সংরক্ষিত ১৩,১৪,১৫ এবং ২৫,২৬,২৭নং ওয়ার্ডে ৫০০ জন করে ৩ হাজার। ইউনিয়ন পরিষদ গুলোতে ১ হাজার জন করে আলীরটেক, গোগনগর ও মদনপুর ইউনিয়ন এলাকায় ৩ হাজার জন সহ মোট ৬ হাজার পরিবারের মাঝে ৫৪ লাখ টাকা প্রেরণ করা হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর