পাড়া মহল্লা লকডাউনে লাঠি হাতে তরুণ কিশোররা, সহনশীলে তাগিদ


স্পেশাল করেসপনডেন্ট | প্রকাশিত: ০৬:৫৮ পিএম, ০৭ এপ্রিল ২০২০, মঙ্গলবার
পাড়া মহল্লা লকডাউনে লাঠি হাতে তরুণ কিশোররা, সহনশীলে তাগিদ

নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় ও পাড়া মহল্লায় এলাকার তরুণ ও কিশোর যুবকরা নিজেরাই লাঠি হাতে নিয়ে লকডাউন ঘোষণা করেছে কয়েকটি এলাকা। এতে করে একদিকে যেমন কেউ কেউ বাহবা দিচ্ছেন অন্যতে এর খারাপ দিকগুলোও তুলে ধরছেন অনেকে।

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) শহরের কয়েকটি এলাকা, ফতুল্লার কয়েকটি এলাকা ও বন্দর ঘুরে এমন দৃশ্য দেখা গেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, এলাকার তরুণ কিশোর ছেলেরা দলবেধে মাইকিং করছে ঘুরে বেড়াচ্ছে আর নিজেরা তাদের গলিগুলোর প্রবেশ মুখে বাঁশ দিয়ে বন্ধ করে লকডাউন করে দিয়েছে। এতে করে এলাকার যুবকরা ঘরে না থেকে বরং তারাই আরো জটলা করে এলাকায় স্বেচ্ছাসেবী কার্যক্রম করতে মাঠে নামছে।

এলাকাবাসীদের মতে, এলাকার যুবক তরুণ ও কিশোররা তো ঘুরেই বেড়াচ্ছেন লাভ কি হচ্ছে। বরং এলাকার কিছু প্রভাবশালীরা এদের আরো শেল্টার দিচ্ছেন। কেউ কেউ রাজনৈতিক দলের পরিচয় দিয়েও এলাকায় মাইকিং করে বেড়াচ্ছেন দলবেধে। এলাকার প্রবেশ পথগুলো এভাবে বাঁশ দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে, এখন তো পুলিশের গাড়িও আসবেনা আর প্রয়োজনে এ্যাম্বুলেন্স ও প্রবেশ করতে পারবেনা। উৎসাহ নিয়ে কাজ করা ভালো তবে এতে অতি উৎসাহী হয়ে উঠলে তো সমস্যা।

তারা জানান, জরুরি প্রয়োজনে কেউ বের হলেও এই তরুণরা ঘিরে ধরেন যা ইচ্ছা তাই ব্যবহার করেন। কয়েক স্থানে কয়েকজন ছাত্রীর বাসার নিচে উচ্চস্বরে হইচই এবং কিছু মেয়ের বাসাকে টার্গেট করে তারা ওইদিকে বার বার মাইকিং করেন আর এসব বাড়ির নিচে ঘোরাফেরা করেন। আইন শৃঙ্খলা রক্ষার কাজ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকেই মানায় আর তাই দ্রুত এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।

এছাড়া জরুরি সেবাসহ যেকোন গাড়ি প্রবেশের জন্য হলেও প্রতিটি এলাকার প্রবেশদ্বার খোলা রাখার আহবান জানান এলাকাবাসীরা।

এ ব্যাপারে নাসিকের কাউন্সিলর ও জনপ্রতিনিধি মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ জানান, তরুণ যুবক ও কিশোররা যতটুকু করেছে সেজন্য তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই আমরা। এখন আর তাদের বাইরে থাকার সময় না, আমি সকলকে ঘরে ফিরে যাবার অনুরোধ জানাই। এসব তরুণ যুবক ও কিশোররা যেকোন সময়ে নিরাপত্তা নিয়ে ঝুঁকির মুখে পতিত হতে পারে। কোন রাস্তাঘাট বন্ধ করা যাবেনা কারণ প্রশাসন, এ্যাম্বুলেন্সসহ জরুরি সেবার গাড়ি প্রবেশ করতে পারে যখন তখন। পুলিশ, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি জনপ্রতিনিধিরা রয়েছে বাইরে আর তাই আমি সকলকে এখনি ঘরে ফিরে যেতে আহবান জানাচ্ছি।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর