করোনায় প্রাণ হারানোর স্মরণে উন্মেষের আলোকপ্রজ্জলন


সিটি করেসপন্ডেন্ট | প্রকাশিত: ১০:২৯ পিএম, ২৩ মে ২০২০, শনিবার
করোনায় প্রাণ হারানোর স্মরণে উন্মেষের আলোকপ্রজ্জলন

৩০ বছর পূর্তি উৎসব উদযাপন না করে করেনাায় প্রাণ হারানো স্বজনদের স্মরণে আলোক প্রজ্জ্বলন করেছেন উন্মেষ সাংস্কৃতিক সংসদের সদস্যরা।

২৩ মে শনিবার সন্ধ্যায় শহরের চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ‘বদ্ধভূমির পাথর ফুঁড়েই উঠবে জেগে লক্ষ প্রাণ’ স্লোগানে নারায়ণগঞ্জ উন্মেষ সাংস্কৃতিক সংসদের উদ্যোগে ওই মোম শিখা প্রজ্জলন করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উন্মেষ সাংস্কৃতিক সংসদের সভাপতি ও ৩০ বছর পূর্তি উৎসব উদযাপন কমিটির আহবায়ক প্রদীপ ঘোষ বাবু, সাবেক সভাপতি সুজয় রায় চৌধুরী বিকু, উদযাপন পরিষদের সদস্য নাসিম আফজাল, সংগঠনের সদস্য শুভ বনিক, মাহবুব আলম, জহিরুল ইসলাম মিন্টু, প্রচার সম্পাদক ইবনে সানি দেওয়ার প্রমুখ।

প্রদীপ ঘোষ বাবু বলেন, ‘২৩ মে উন্মেষ ৩০ বছর পূর্তি। আমরা ৩০ বছর ধরে নারায়ণগঞ্জ সহ সারা বাংলাদেশে সামাজিক সাংস্কৃতিক আন্দোলনের সঙ্গে আছি এবং প্রতিনিয়ত আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমরা ৩০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছিলাম যে আমরা বছর ধরে এ উৎসবটি পালন করবো। যার ধারবাহিকতায় গত ৩ জানুয়ারি আমরা এর উদ্বোধনও করি। অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন বর্ষিয়ান শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ আবুল কাসেম ফজলুল হক এবং প্রধান অতিথি ছিলেন নাট্যজন মামুনুর রশিদ। সেই সময় আমরা কবর নাটক মঞ্চায়িত করি। এছাড়া সৌমেন চন্দ্রকে নিয়ে আমরা একটি সেমিনারও করি। সেগুলো সার্থক ভাবে হয়।’

তিনি বলেন, প্রতিবছর আমরা ভয়াল কালো রাত স্মরণে যখন আমরা অনুষ্ঠানটি করবো তার আগে আমরা লকডাউনের মধ্যে পরি। সমগ্র বিশ্বে করোনার কষাঘাতে মানুষ মারা যাচ্ছে। এ অবস্থায় আমরা পড়ে যাই। তারপরও আমরা ছোট পরিসরে তিন বন্ধু মিলে এসে শহীদদের স্মরণ করে মোম শিখা প্রজ্জলন করি। এরপর থেকে আমরা আর বের হতে পারিনা। সারা বিশ্বে আজ করোনার কাষাঘাতে লাখ লাখ প্রাণ চলে যাচ্ছে। সেজন্য আমরা আমাদের ৩০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান বাতিল করেছি। এর পরিবর্তে আমাদের দেশে ও বিদেশে যারা করোনার কষাঘাতে প্রাণ হারিয়েছে সেইসব স্বজনদের স্মরণে আমরা আমাদের উদযাপন দিনটি উৎসর্গ করেছি। তাদের শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। আমরা বিশ্বাস করি করোনার এ প্রবল থাবা থেকে মানুষ অবশ্যই মুক্তি পাবে। মানুষের জয় হবে এবং মানবতার জয় হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন:
newsnarayanganj-video
আজকের সবখবর