করোনার সামান্য উপসর্গ একজনের মৃত্যু, দাফনে খোরশেদ

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:৩১ পিএম, ২০ মে ২০২০ বুধবার

করোনার সামান্য উপসর্গ একজনের মৃত্যু, দাফনে খোরশেদ

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের প্রকোপ দিন দিন বেড়েই চলছে। প্রথমদিকে এই রোগের উপসর্গ দেখা দিলেও এবার উপসর্গ ছাড়াই কিংবা আংশিক উপসর্গ নিয়ে হঠাৎ করেই মারা যেতে শুরু করছে মানুষ। তেমনিভাবে নারায়ণগঞ্জেও করোনার নতুন রুপ আবির্ভাব দেখা দিয়েছে। সবশেষ নারায়ণগঞ্জ শহরের আমলাপাড়া এলাকার একজন সামান্য উপসর্গ নিয়ে কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই মারা গিয়েছেন।

জানা যায়, বর্তমান সময়ের সবচেয়ে আলোচিত রোগ হলো করোনা ভাইরাস। এই রোগে আক্রান্ত হলে রয়েছে মৃত্যুঝুঁকি। এই রোগের প্রকোপ ক্রমেই বেড়ে চলছে। নারায়ণগঞ্জে ইতোমধ্য আক্রান্তের সংখ্যা ১৮’শ ছাড়িয়েছে। সেই সাথে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েই চলছে।

করোনা ভাইরাসের লক্ষ্যণ হিসেবে বলা হয়েছে জ্বর, কাশি, শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যাই মূলত প্রধান লক্ষণ। এটি ফুসফুসে আক্রমণ করে। সাধারণত শুষ্ক কাশি ও জ্বরের মাধ্যমেই শুরু হয় উপসর্গ, পরে শ্বাস প্রশ্বাসে সমস্যা দেখা দেয়। সাধারণত রোগের উপসর্গগুলো প্রকাশ পেতে গড়ে পাঁচ দিন সময় নেয়।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, ভাইরাসটির ইনকিউবেশন পিরিয়ড ১৪দিন পর্যন্ত স্থায়ী থাকে। তবে কিছু কিছু গবেষকের মতে এর স্থায়ীত্ব ২৪দিন পর্যন্ত থাকতে পারে।

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে এসকল উপসর্গ ছাড়াই মানুষ মারা যাচ্ছে। কিছু বুঝে উঠার আগেই শ্বাসকষ্ট ও বুক ব্যাথা নিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিটের মধ্যে মানুষ মারা যাচ্ছে। ঠিক তেমনিভাবেই মৃত্যুবরণ করেছেন আমলাপাড়া এলাকার বাসিন্দা মোঃ শাহিন। তিনি গত ৪ দিন জ্বরে ভুগছিলেন। মঙ্গলবার দিবাগত ১২ টার দিকে তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয় এবং অজ্ঞান হয়ে যান। পরিবারের লোকজন তাকে ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জানান তিনি হাসপাতালে নেয়ার আগেই মারা গেছেন।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও করোনাকালে স্বেচ্ছায় লাশের দাফন ও কাফনকারী মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ জানান, সম্ভবত করোনার নতুন রুপের শিকার হলেন আমলাপাড়া নিবাসী মোঃ শাহিন। তিনি গত ৪ দিন জ্বরে ভুগছিলেন। ১২ টার দিকে তার শ্বাসকষ্ট শুরু হয় এবং অজ্ঞান হয়ে যান।পরিবারের লোকজন তাকে ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক জানান তিনি হাসপাতালে নেয়ার আগেই মারা গেছেন।

তিনি আরও জানান, আমরা পরিবারের আহবানে সকাল ৯ টায় আমরা শাহিনের গোসল জানাযা ও দাফন সম্পন্ন করেছি। গোসল করান আমাদের সহযোদ্ধা হাফেজ শিব্বির আহমেদ, জানাযা পড়ান কবরাস্তান মসজিদের ইমাম মাওলানা বদর শাহ। আজ টিমে ছিলেন হিরা, হাফেজ শিব্বির, আনোয়ার, সুমন, রাফি ও লিটন মিয়া।


বিভাগ : মহানগর


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও