শেষ জুমআতে চোখের জলে নারায়ণগঞ্জকে করোনা মুক্তির প্রার্থনা

সিটি করেসপন্ডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৭:৪৯ পিএম, ২২ মে ২০২০ শুক্রবার

শেষ জুমআতে চোখের জলে নারায়ণগঞ্জকে করোনা মুক্তির প্রার্থনা

প্রত্যেক বছরের রমজান মাসের শেষ জুমআকে বলা হয় জুমআতুল বিদা। সে হিসেবে ২২ মে শুক্রবার ছিল জুমআতুল বিদা। সাধারণত রমজানের শেষ জুমআ অর্থ্যাৎ জুমআতুল বিদায় ধর্মীয়প্রাণ মুসল্লিদের মধ্যে অন্যরকম আমেজ লক্ষ্য করা যায়। মসজিদগুলোতে মুসল্লিদের ঢল নেমে থাকে। তারা আল্লাহর দিকে অবনতচিত্তে ইবাদত বন্দেগীতে লিপ্ত হয়ে থাকেন।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারেও জুমআতুল বিদায় নারায়ণগঞ্জের মসজিদগুলোতে মুসল্লিদের ভিড় লক্ষ্য করা করা গেছে। মসজিদ পূর্ণ হয়ে যাওয়ায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করেছেন মুসল্লিরা। তবে এবারের জুমআতুল বিদায় নারায়ণগঞ্জের মসজিদগুলোতে ছিল করোনা মুক্তির আহাজারি। সকলেই মুখেই এক প্রার্থণা ছিল আর সেটা ছিল আল্লাহ যেন সবাইকে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি দিয়ে দেন।

নারায়ণগঞ্জ শহরের অন্যতম প্রধান মসজিদ ডিআইটি রেলওয়ে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে গিয়ে দেখা যায়, মসজিদের ভিতর জায়গার সংকুলান না হওয়ায় মুসল্লিরা রাস্তায় দাঁড়িয়ে জুমআর নামাজ আদায় করেছেন। প্রধান সড়কের বিশাল একটি অংশ জুড়েই ছিল মুসল্লিদের নামাজ আদায়ের কাতার। রমজানের শেষ জুমআ অর্থ্যাৎ জুমআতুল বিদা হওয়ায় প্রায় সকলেই মসজিদমুখী হয়েছেন।

ধর্মীয়প্রাণ মুসল্লিরা একাগ্রচিত্তে জুমআর নামাজ আদায় করেছেন। সেই সাথে নামাজ শেষে বর্তমান সময়ে দুর্যোগ সৃষ্টি করা প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য মহান আল্লাহর কাছে কাকুতি মিনতি করে চোখের জলে প্রার্থণা করেছেন।

পবিত্র মাহে রমজানের রোজার উছিলায় যেন করোনা মুক্তি দেয়া হয় সেই প্রার্থণা করেছেন। মোনাজাতে মুসল্লিদের মধ্যে ছিল আমিন আমিন ধ্বনিতে ছিল আহাজারি। সকলের অশ্রুসজল চোখে আল্লাহর কাছে করুণ সুরে প্রার্থনা করেছেন। ঠিক একইভাবে নারায়ণগঞ্জ শহরের অন্যান্য মসজিদগুলোতেও একই চিত্র দেখা গেছে।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও