দুটি হাসপাতালের অব্যবস্থাপনা ছাত্রলীগ সাবেক নেতার বক্তব্যে

ডেস্ক রিপোর্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৮:২৫ পিএম, ১৪ মে ২০২০ বৃহস্পতিবার

দুটি হাসপাতালের অব্যবস্থাপনা ছাত্রলীগ সাবেক নেতার বক্তব্যে

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানি নারায়ণগঞ্জের দুটি হাসপাতালকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

এতে তিনি লিখেছেন, ‘আল্লাহ যদি হায়াত দান করেন, বাংলাদেশ থেকে করোনা মুক্ত হওয়ার পরে স্লোগান সংগঠনের পক্ষ থেকে নারায়ণগঞ্জ ‘খানপুর হাসপাতাল’ ও নারায়ণগঞ্জ ‘ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে’ সরকারি ভাবে ওষুধ পত্র ও অন্যান্য সামগ্রী কি কি প্রেরণ করা হয়? এবং কোন কোন খাতে তারা এগুলো ব্যয় করেন? আমরা সচেতন নাগরিক হিসেবে স্বেচ্ছাসেবক হয়ে এগুলো তদারকি করার দায়িত্ব চাইবো?

না এর জন্য আমাদের কোনো বেতন দিতে হবে না, হাসপাতালগুলোতে খাবার সাপ্লাই এর টেন্ডারও চাইবো না, বিভিন্ন মেডিকেল এক্সোসরিজ সাপ্লাই এর টেন্ডারও চাইবো না। আগেই বলে নিয়েছি স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে, নারায়ণগঞ্জবাসীর স্বার্থে কাজ করবো। কিন্তু এটার জবাব দিতে হবে কেন আধুনিক যন্ত্রপাতিগুলো নষ্ট করা হলো? কি পরিমাণ সরকারি ওষুধ এবং অন্যান্য সামগ্রী আসে, এবং কোথায় কোথায় তারা এটা খরচ করে?

ছোটবেলায় শুনেছি এবং দেখেছিও নারায়ণগঞ্জের খানপুর হাসপাতাল, বাংলাদেশের মধ্যে অত্যাধুনিক কয়েকটা হাসপাতালের অন্যতম একটা হাসপাতাল ছিলো। তৎকালীন সাংসদ মরহুম আলহাজ্ব একেএম নাসিম ওসমান সাহবের সুযোগ্য নেতৃত্বের ফলে নারায়ণগঞ্জের এই সরকারি হাসপাতালটি তৈরি হয়। জাপানিরা এই হাসপাতালটি তৈরি করেন।

কিন্তু একি হায়!!! দিনের পর দিন আধুনিক যন্ত্রপাতি সম্পন্ন হাসপাতালটা একটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চেয়েও ভঙ্গুর অবস্থায় পরিণত হলো কেন? এখানে একটা ব্লাড টেস্ট পর্যন্ত করা যায় না কেন? এখানে দায়িত্বরত ডাক্তাররা একবারও কি এই ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করেছেন? নাকি প্রাইভেট হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলো থেকে কমিশন খেয়ে মুখে কুলুপ এঁটে রেখেছিলেন?

কাউকে হেয় করার জন্য বলছি না সময় হয়েছে একজন সুনাগরিক হিসেবে এগুলোকে তদারকি করে দেশের স্বার্থে কাজ করার। তাহলেই রাজনীতি সার্থক হবে বলে মনে করি।



নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও